বুধবার , ২৪ জানুয়ারি ২০১৮
Home » তথ্যপ্রযুক্তি » ভালো নেই তালার মৎস্যজীবী পরিবারগুলো

ভালো নেই তালার মৎস্যজীবী পরিবারগুলো

tala news

tala news

সি নিউজ : ভালো নেই তালা সদরের মালোপাড়া ও জেয়ালা নলতা গ্রামের সহস্রাধিক মৎস্যজীবী পরিবার। কপোতাক্ষ নদ ও শালতা নদী শুকিয়ে মরাখালে পরিণত হওয়ায় কর্মহীন হয়ে অভাব-অনটনের মধ্যে কষ্টে দিনাতিপাত করছে মৎস্যজীবী এ পরিবার গুলো। বাপ-দাদার আমল থেকে এ পেশাকে পুঁজি করে যাদের পরিবারের সদস্যদের তিন বেলা আহারের ব্যাবস্থা হতো, মরা কপোতাক্ষ ও শালতা আজ বদলে দিয়েছে তাদের জীবন, কেড়ে নিয়েছে জীবন -জীবিকার পথ। বিকল্প কোনো কর্মসংস্থান জানা না থাকায় প্রতি বছর সাগরে মাছ ধরতে গিয়ে, কেউবা সুন্দরবনে কাঠ কাটতে গিয়ে অকালে মৃত্যুবরণ করে লাশ হয়ে বাড়ি ফিরছে। কেউবা জলদস্যুদের দ্বারা অপহৃত হয়ে ভিটেমাটি বিক্রি করে মুক্তিপণ দিয়ে কোনো রকম জীবন বাঁচিয়ে নিঃস্ব হয়ে বাড়ি ফিরছে। কপোতাক্ষ ও শালতা নদী ছাড়াও যেসব জলাধার রয়েছে সেগুলোও কোনো না কোনো প্রভাবশালী ব্যক্তি দখল করে রেখে মৎস্য ঘের করছে বছরের পর বছর। প্রভাবশালীদের হাত থেকে জলাধারগুলো উদ্ধার করে মৎস্যজীবীদের কর্মক্ষেত্র তথা রুটি-রোজগারের ব্যবস্থা করার দায়িত্ব নিয়ে কেউ এগিয়ে আসছে না।
বিভিন্ন সূত্র থেকে জানা যায়, তালা সদরের জেয়ালা নলতা, খেশরা, মাগুরা, খলিষখালী, নগরঘাটা,ধানদিয়া, সরুলিয়া, জালালপুর, খলিলনগর, ইসলামকাটি, কুমিরা ও তেঁতুলিয়া ইউনিয়নে অনেক জলাধার রয়েছে। এসব জলাধারকে পুঁজি করে মাছ ধরার পেশায় থাকা মানুষদের কর্মসংসস্থানের ব্যবস্থা হতে পারে।
কিন্ত খোঁজ নিয়ে দেখা যায়, এসব জলাধার স্থানীয় কোনো না কোনো প্রভাবশালী দখল করে মৎস্য ঘের করছেন। দখলদাররা কোনো না কোনো রাজনৈতিক দলের আশীর্বাদপুষ্ট হওয়ায় এগুলো উদ্ধার করে মৎস্যজীবীদের কর্মক্ষেত্র তৈরি করার ব্যবস্থা করা যাচ্ছে না। ফলে টাকাওয়ালা মানুষগুলো মৎস্য ঘেরের মাধ্যমে আরো ধনী হচ্ছেন আর কর্মহীন মৎস্যজীবীরা বেকার অবস্থায় পরিবারের সদস্যদের নিয়ে অর্ধাহারে-অনাহারে দিনাতিপাত করছেন।